Thursday, 16 August 2018
RSS Facebook Twitter Linkedin Digg Yahoo Delicious
সংবাদ শিরোনাম

জোট গঠনের লক্ষ্যে সিঙ্গাপুরে বসবেন এরশাদ-তারেক

ডেস্ক রিপোর্ট :
সৌদি আরব, ইসরাইল ও ভারতের সহায়তায় চেয়ে ব্যর্থ হয়ে এবার বাংলাদেশের রাজনীতির ডিগবাজীবাবাখ্যাত জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদকে রাজনৈতিক সঙ্গী বানাতে তৎপরতা চালাচ্ছেন লন্ডনে পলাতক বিএনপি নেতা তারেক রহমান। জানা গেছে, মেডিকেল চেকআপের কথা বলে এরশাদ জাতীয় পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলদার এমপি, পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু এমপি ও মেজর মো. খালেদ আখতারকে (অব.) নিয়ে সিঙ্গাপুর সফর করছেন।

গোপন সূত্র বলছে, মূলত বিএনপি নেতা তারেক রহমানের সাথে বৈঠকের জন্যই সিঙ্গাপুরে গেছেন এরশাদ। বৈঠকে আগামী নির্বাচনে বিএনপি ও জাতীয় পার্টির সম্ভাব্য জোট গঠনের বিষয়ে আলোচনা হতে পারে।

লন্ডন বিএনপি সূত্রে জানা গেছে, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি জাতীয় পার্টিকে নিজেদের শরিক হিসেবে পেতে চায়। কারণ বিএনপির বর্তমান ভঙ্গুর অবস্থায় আওয়ামী লীগের মত জনপ্রিয় একটি দলকে নির্বাচনে এককভাবে ঠেকানো প্রায় অসম্ভব। দুপায়ে দাঁড়াতে বিএনপির এখন ক্রাচ দরকার। আর জাতীয় পার্টি সেই ক্রাচের ভূমিকা পালন করতে পারে। কারণ বিএনপির হৃদপিণ্ডখ্যাত জামায়াতের নির্বাচনে অংশগ্রহণ করাটা প্রায় অসম্ভব। এই অবস্থায় বিএনপির যোগ্য সহায়তাকারী দরকার। নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিএনপির বুকের ধন হতে পারে জাতীয় পার্টি। তাই শত বাধা সত্বেও জাতীয় পার্টির সাথে বৈঠক করতে দু-একদিনের মধ্যে গোপনে সিঙ্গাপুর সফর করবেন তারেক রহমান বলে সূত্রটি নিশ্চিত করেছে। জানা গেছে, অতীতের সব ঝগড়া-বিবাদ বাদ দিয়ে, এক হয়ে আওয়ামী লীগ সরকারের পতন ঘটিয়ে সরকার গঠন করতে চায় বিএনপি-জাতীয় পার্টি।

সূত্র বলছে, তারেক রহমানের সাথে ইতোমধ্যেই গোপনে জাতীয় পার্টির একাধিক নেতার সাথে ফোনালাপ হয়েছে। সেই ফোনালাপের জের ধরেই সিঙ্গাপুরে এক ছাতার নিচের বসতে যাচ্ছেন তারেক রহমান ও এরশাদ। তবে অস্বস্থিও কম নেই সেই মিটিংকে ঘিরে। কারণ ইতোমধ্যেই এরশাদ তার সহচরদের মাধ্যমে তারেক রহমানের কাছে কিছু বার্তা পাঠিয়েছেন। যেটি নিয়ে তারেক লন্ডন বিএনপির একাধিক দাতা নেতাদের নিয়ে একাধিক বৈঠকও করেছেন। এরশাদের শর্তগুলোর মধ্যে অন্যতম হল, অভিন্ন রাজনৈতিক জোট গঠন করে নির্বাচনে জয়ী হলে এরশাদকে প্রেসিডেন্ট বানাতে হবে। তার নামে যতগুলো রাজনৈতিক মামলা রয়েছে তা প্রত্যাহার করতে হবে। নির্বাচন প্রস্তুতি ও অংশগ্রহণ বাবদ নগদ দেড়শত কোটি টাকা হাত খরচ দিতে হবে। জাতীয় পার্টির ২০ জনকে মন্ত্রীত্ব দিতে হবে। এরশাদের জন্য বিশেষ বিমানের ব্যবস্থা করতে হবে। এছাড়া সংবিধান সংশোধন করে এরশাদকে বৈধ শাসক হিসেবে স্বীকৃতি দিতে হবে।

সূত্রটি আরো জানায়, এরশাদের আকাশসম চাহিদা নিয়ে গভীর দুশ্চিন্তায় পড়েন তারেক রহমান। কিন্তু দেশ শাসনের বিষয়টি মাথায় আসলে দুশ্চিন্তা দূর করে এরশাদের সব শর্ত মেনে নিয়ে সিঙ্গাপুরে বৈঠক করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারেক। সিঙ্গাপুর সফরের জন্য ইতোমধ্যে চাঁদা সংগ্রহ শুরু করেছেন তারেক রহমান। বাংলানিউজপোষ্ট


##বর্তমান সংবাদ.কম এ প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, তথ্য, ছবি, বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।##

নামাজের সময়সূচী

ওয়াক্ত শুরু জামাত
ফজর ৫-০৬ ৫-৪৫
জোহর ১২-১৪ ১-১৫
আসর ৪-২৩ ৪-৪৫
মাগরিব ৬-০৬ ৬-১১
এশা ৭-১৯ ৮-০০

ফেসবুকে আমরা

সর্বশেষ সংবাদ